চরফ্যাসনের ঢালচরে আশ্রয়কেন্দ্র না থাকায় ঝড়-জলোজ্জ্বসের সময় অনেকেই বনে আশ্রয় নেয়

চরফ্যাসনের ঢালচরে আশ্রয়কেন্দ্র না থাকায় ঝড়-জলোজ্জ্বসের সময় অনেকেই বনে আশ্রয় নেয়

0 93

ঘূর্ণিঝড় ফণি’র প্রভাবে চরফ্যাসনের ঢালচর, চর কুকরি মুকরি ও মুজিবনগর এলাকায় জোয়ার পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। ঘনঘন বৃষ্টি এবং আকাশ মেঘাচ্ছন্ন রয়েছে। এব্যাপারে চরফ্যাসন উপজেলা সিপিপি সহকারি পরিচালক মোঃ মোকাম্মেল হকের সাথে ফোন কলে কথা হলে তিনি বলেন, এখনো বড় ধরণের কোনো ক্ষয়ক্ষতির ঘটান ঘটেনি। তবে ঢালচরে জোয়ারের পানি স্বাভাবিকের চেয়ে ২ফিট উপরে অবস্থান করেছ।
কোস্ট ট্রাস্টের মনপুরার ব্রাঞ্চ ম্যানেজারের সাথে ফোনে কথা হলে তিনি জানান, মনপুরায় এখানো ঝড়-বৃষ্টির প্রভাব পড়েনি। তবে থেমে থেমে হালকা মাঝারী ধরণের বৃষ্টি হয়েছে। এখন আকাশ মেঘলা এবং পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানান তিনি।
তবে ভোলার চরফ্যাশন উপজলোর যোগাযোগ বিচ্ছন্ন ঢালচর ইউনিয়নের প্রায় ১৭ হাজার বাসিন্দা সেখানে আটকা পড়েছে বলে জানা যায়। এ ইউনিয়নে কোনো ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র না থাকায় ঝড়-জলোচ্ছ্বাসের সময় অনেকেই বনে আশ্রয় নেয়।

ঢালচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুস সালাম বলেন, ‘আমার ইউনিয়নে কোনো ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র নেই। চারদিক নদী-সাগরবেষ্টিত ইউনিয়নের মানুষ ঝড়-জলোচ্ছ্বাসের সময় বনের মধ্যে আশ্রয় নয়ে।’

ঘূর্ণিঝড়ের সর্তকতা জারির পর ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে আশ্রয় নিচ্ছেন স্থানীয় লোকজন। ভোলার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম সিদ্দিকী বিকেলে বলনে, ঢালচর জোয়ারের পানিতে প্লাবিত হওয়ায় অবস্থা খারাপ ছিল। এখন ভাটা হওয়ায় পানি নেমে গেছে, তাই তেমন সমস্যা নেই। তবে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার লোকজনকে নিরাপদে সরিয়ে আনার জন্য কোস্টর্গাডের দুটি যান পাঠানো হয়েছে। আর যে তিনটি পাকা ভবন আছে, সেখানে ৭০০ থেকে ৮০০ লোক আশ্রয় নিয়েছে।

চারদিকে নদী আর সাগরবেষ্টিত বিচ্ছিন্ন এই জনপদ ঢালচর মূল ভূখণ্ড থেকে সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন। এখানে কোনো ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র নেই। তিনটি পাকা ভবন রয়েছে। সেগুলোতে ধারণক্ষমতা ৬০০ মানুষের। যেকোনো ঝড়-জলোচ্ছ্বাস থেকে সুরক্ষার জন্য এ ইউনিয়নের বাসিন্দারা বাড়িঘর ছেড়ে অপেক্ষাকৃত উঁচু শ্বাসমূলীয় বনাঞ্চলে আশ্রয় নেয়। দ্বীপটির বেশির ভাগ বাসিন্দা জেলে।

যেকোনো রকমের সমাস্যার জন্য নিচের মোবাইল নাম্বারে যোগাযোগ করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।

চর মানিকা শাখা ব্যবস্থাপক মোবাইল নং ০১৭১৩ ১৬৪৬২০
মনপুরা সদর শাখা ব্যবস্থাপক মোবাইল নং ০১৭১৩ ১৬৪৬৪৫
সাকুচিয়া শাখা ব্যবস্থাপক মোবাইল নং ০১৭১৩ ১৬৪৬৪৩
চর কলাতলী শাখা ব্যবস্থাপক মোবাইল নং ০১৭১৩ ১৬৪৬৬২
চর কুকরিমুকরি শাখা ব্যবস্থাপক মোবাইল নং ০১৭১৩ ১৬৪৬৪১
ঢালচর শাখা ব্যবস্থাপক মোবাইল নং ০১৭১৩ ১৬৪৬৪২
চর মোতাহার শাখা ব্যবস্থাপক মোবাইল নং ০১৭১৩ ১৬৪৬৪০
চর কাজল শাখা ব্যবস্থাপক মোবাইল নং ০১৭১৩ ১৬৪৬৩৯
দশমিনা শাখা ব্যবস্থাপক মোবাইল নং ০১৭১৩ ১৬৪৬৩৮
চর জহিরউদ্দিন শাখা ব্যবস্থাপক মোবাইল নং ০১৭১৩ ১৬৪৬৪৬
চর অঞ্চল আরপিসি মোবাইল নং ০১৭১৩ ৩২৮৮১৩
ভোলা অঞ্চল আরপিসি মোবাইল নং ০১৭১৩ ৩২৮৮১৪
বরিশাল অঞ্চল আরপিসি মোবাইল নং ০১৭১৩ ৩২৮৮২৬
বরিশাল সদর শাখা ব্যবস্থাপক ০১৭০৮ ১২০৩৪১
ঝালকাঠী শাখা ব্যবস্থাপক ০১৭০৮ ১২০৩৪৪
মাধবপাশা শাখা ব্যবস্থাপক ০১৭০৮ ১২০৩৪২
সাহেবেরহাট শাখা ব্যবস্থাপক ০১৭০৮ ১২০৩৪৩
পটুয়াখালি জেলা টিম লিডার ০১৭১৩ ৩২৮৮৩৬
নোয়াখালি অঞ্চলের আরপিসি ০১৭১৩ ৩২৮৮০৮
ভোলা টিম লিডার ০১৭১৩ ৩২৮৮০২
মোঃ ইউনুস ০১৭১৩ ৩২৮৮১২
শহর আলী ০১৭১৩ ১৬৪৬৬৭

ঢাকা
মোস্তফা কামাল আকন্দ, মোবাইল সাম্বার ০১৭১১ ৪৫৫৫৯১
সনত কুমার ভৌমিক মোবাইল নাম্বার ০১৭১১ ৮৮১৬৬২

email info@coastbd.net