ঘূর্ণিঝড় ‘মোরা’ নিয়ে রেডিও মেঘনার অব্যাহত কার্যক্রম

ঘূর্ণিঝড় ‘মোরা’ নিয়ে রেডিও মেঘনার অব্যাহত কার্যক্রম

0 84

Indexঘূর্ণিঝড় ‘মোরা’ বর্তমানে উপকূল অতিক্রম করে ভোলা, হাতিয়া, চাঁদপুর, অঞ্চলে অবস্থান করছে। এঅবস্থায় উপকূলে বিপদসংকেত জারি থাকবে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক শামসুদ্দিন আহমেদ।
তিনি আরো জানান, মঙ্গলবার বেলা ১১টার মধ্যে ঘূর্ণিঝড় ‘মোরা’ বাংলাদেশ অতিক্রম করবে। সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে ঘূর্ণিঝড়টি বাংলাদেশে আঘাত হানে। তবে ঝড়ের তীব্রতা আর না বাড়লে এটি আরও উত্তর দিকে অগ্রসর হতে পারে। ‘মোরা’র প্রভাবে ভোরে টেকনাফে বাতাসের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১৩৫ কিলোমিটার ও সেন্টমার্টিনে ১১৪ কিলোমিটার। তবে এ ঘূর্ণিঝড়টি বিচ্ছিন্নভাবে বিভিন্ন এলাকায় বিভিন্ন গতিবেগে আঘাত হানছে। মোরা উত্তর দিকে অগ্রসর হয়ে ধীরে ধীরে নিম্নচাপে পরিণত হবে।
গতকাল (সোমবার) সকাল থেকে ঘূর্ণঝড় ‘মোরা’ পূর্ববর্তী প্রস্তুতি- সতর্কবাণী এবং পরবর্তী করণীয় সংক্রান্ত তথ্য প্রচারের উদ্দেশ্যে রেডিও মেঘনার কর্মীদল কাজ করে চলেছে। যা বিকাল ৫টা থেকে শুরু হয়ে এখনো নিরবিচ্ছিন্নভাবে চলছে।
এই কাজের অংশ হিসেবে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের বিশেষ বিজ্ঞপ্তি অব্যাহতভাবে প্রচার ছাড়াও সরকারি এবং বেসরকারি বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সাক্ষাৎকার প্রচার করা হয়। উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিদের মধ্যে ছিলেন, ভোলা জেলা প্রশাসক; চরফ্যাশনের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা দুর্যাগ ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা, উপজেলা চেয়ারম্যান; চর কুকরি মুকরির ইউপি চেয়ারম্যান; চর মাদ্রাজের ইউপি চেয়ারম্যান; জিন্নাগড় ইউপি চেয়ারম্যান; মহেশখালী কন্ট্রোল রুম; কক্সবাজার জেলা প্রশাসক; উপকূলীয় রেড ক্রিসেন্ট কর্মকর্তা (মহেশখালী, কুতুবদিয়া, কক্সবাজার)। এসময় তাদের কাছ থেকে দুর্যাগ পূর্ববর্তী এবং পরবর্তী করণয়ী (প্রস্তুতি সংক্রান্ত) সম্পর্ক অবহিত করা হয় শ্রোতাদের। এছাড়া কোস্ট ট্রাস্ট এর ৫টি অঞ্চল- ভোলা, আশ্রয় কেন্দ্রের পরিস্থিতি, সেখানকার দুর্যগের তথ্য হাল-নাগাদ এবং প্রস্তুতি সংক্রান্ত তথ্য রেডিও মেঘনার মাধ্যমে রাতভর প্রচার করা হয়।
এই নিরবিচ্ছিন্ন কাজে রাত জেগে শ্রোতাদের সাথে যুক্ত থেকে নানা তথ্য প্রদান করেছেন রেডিও মেঘনার একদল কিশোরী-আঁখি, নিশি, কণিকা, মৌসুমী, সালমা, লাবনী, সালমা, শান্তা প্রমূখ। এই ঘূর্ণঝড়ের সতর্কবার্তা এবং প্রস্তুতি সংক্রান্ত তথ্য প্রদান আজ বেলা ১টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকে। টানা ২০ ঘন্টা ধরে নিরবচ্ছিন্নভাবে এই কার্যক্রম চালিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য রেডিও মেঘনার এই কিশোরীদলকে বিশেষ ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা।

অনলাইনে শুনতে ভিজিট করুন www.radiomeghna.net এই ঠিকানায়।

NO COMMENTS

Leave a Reply