শহিদদের আত্মত্যাগই আমাদের চলার পথের দিশা

শহিদদের আত্মত্যাগই আমাদের চলার পথের দিশা

0 260
বাংলা ভাষাকে মাতৃভাষা হিসেবে ফিরিয়ে আনার দাবিতে যারা ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারিতে নিজের প্রাণ উৎসর্গ করেছিলেন তাদের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের জন্য কোস্ট ট্রাস্ট তার কর্মএলাকায় আজ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করে। পাকিস্তানের তৎকালীন রাষ্ট্রপতি উর্দুকে বাংলাদেশের রাষ্ট্রভাষা হিসেবে ঘোষণা করেছিলেন, যা ছিল বাংলার মানুষের উপর চাপিয়ে দেয়া নিপীড়ন। তারই প্রতিবাদে বিক্ষোভে রাস্তায় নেমে পড়েন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের নেতৃত্বে বাংলা আপামর জনসাধারণ। নিজের প্রাণ বিলিয়ে দিয়ে তারা বাংলাকে আমাদের মাতৃভাষা হিসেবে ফিরিয়ে দিয়ে যান। তাদের দাবি ছিল খুবই সরল, নিজের মাতৃভাষা ছাড়া কারো পক্ষে সহজে মনের ভাব প্রকাশ করা সম্ভব না।
১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের মূল চেতনা ছিল চারটি মূলনীতির উপর দাঁড়িয়ে- গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র, জাতীয়তাবাদ ও ধর্মনিরপেক্ষতা। এবং এই চেতনার উৎপত্তি ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারিতে ভাষাশহিদদের আত্মত্যাগ হতে। সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে ধর্ম-বর্ণ-শ্রেণি নির্বিশেষে মর্যাদা প্রদানের জন্য গণতন্ত্র ও সহনশীলতার জন্য সচেতনতা সৃষ্টিতে কোস্ট প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। ২১ ফেব্রুয়ারি সেই দীপ্ত শপথ গ্রহণের শ্রেষ্ঠ সময়। কোস্ট ট্রাস্ট তার কর্মএলাকায় স্থানীয় শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পনের মাধ্যমে এই প্রতিজ্ঞার স্বাক্ষর রেখেছে।
কোস্টের নির্বাহী পরিচালক আজ কক্সবাজারের কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন। উপ-নির্বাহী পরিচালকের নেতৃত্বে অন্যান্য উর্ধতন কর্মকর্তারা ঢাকায় কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদন করেন।

Photos